Research 5

উপসংহার

সময়ের প্রয়োজনে ইন্টারনেটের ব্যবহার দিন দিন বেড়েই যাচ্ছে। ইন্টারনেটের সংযোগ থাকা মানেই বিশ্বের সাথে একটি আন্তযোগাযোগ স্থাপিত হয়ে যাওয়া। পৃথিবীর নানান প্রান্তে কখন কি হচ্ছে, কি কি পরিবর্তন হলো, নতুন কোন সংবাদ, নতুন কোন ঘটনা সব কিছু জানতে হলে আমাদের স্মরণাপন্ন হতে হয় ইন্টারনেটের। আমরা খুব সহজেই ‌যে কোন খবর জানতে পারি, খবর পৌছে দিতে পারি সকলের কাছে।

আমাদের দেশেও বেড়ে যাচ্ছে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যা। এখন ইন্টারনেট ব্যবহার করাও অনেক সহজ হয়ে যাচ্ছে, কমেছে এর ব্যবহারের খরচ। বিশেষ করে মোবাইলে ইন্টারনেট চালু হওয়ার পর থেকে যে কোন স্থান থেকে যে কোন সময়ে আমরা ইন্টারনেট ব্যবহার করতে পারি। এরপর আছে ল্যাপটপ, দিন দিন ল্যাপটপের দাম কমে যাচ্ছে কিন্তু বাড়ছে এর গতি। সব কিছু মিলিয়ে ইন্টারনেট আমাদের দুয়ার প্রান্তে এসে দাঁড়াচ্ছে।

কেউ ইন্টারনেট ব্যবহার করলে আমি তাকে প্রথম যে প্রশ্ন করি তা হলো ইন্টারনেট ব্যবহার করে সে কি কি কাজ করে। মোটামুটি আশি শতাংশ লোকের কাছ থেকে আমি একটিই উত্তর পাই, তা হলো ইন্টারনেট ব্যবহার করে তারা ফেসবুক ব্যবহার করে থাকেন। এরপর আছে মেইল করা। এ ছাড়া আর কোন ব্যবহার তারা করেনা।

বর্তমানে সামাজিক যোগাযোগের যে কয়টি ওয়েব সাইট আছে তার মধ্যে ফেসবুক একটি জনপ্রিয় ওয়েব সাইট। এর ম্যাধ্যমে আমরা সবার সাথে সহজেই যোগাযোগ রাখতে পারি, খুঁজে পেতে পারি কোন পুরনো বন্ধুকে, জানতে পারি তাদের সর্বশেষ খবর, ভাগাভাগি করতে পারি তাদের অনুভূতিকে। কিন্তু এটাই কি সব?

দিনের পর দিন নতুন প্রজন্ম আরো বেশি পরিমাণে ফেইসবুকের এ নেশায় বুদ হচ্ছে। সামজিক নেটওয়ার্কিং সাইট ফেসবুক এর ব্যবহারকারীদের উপর কি প্রভাব ফেলে গবেষণা প্রতিষ্ঠান এবং বিশ্ববিদ্যালয়গুলো এরিমধ্যে এ নিয়ে একাধিক স্বল্প মেয়াদী এবং দীর্ঘ মেয়াদী অনেকগুলো গবেষণা পরিচালনা করেছেন। গবেষণাগুলোর প্রভাব দেখে যে কোন সচেতন ব্যক্তিরই মাথা ঘুরে যাওয়ার উপক্রম।

আসলে ফেসবুক নিয়ে সামপ্রতিক সমাজবিজ্ঞানীরা নানা ধরনের গবেষণা পরিচালনা করছেন। তারা দেখছেন আধুনিক মানুষের অস্থিরতার একটা বড় কারণ হলো ফেসবুক বা সামাজিক যোগাযোগের নেটওয়ার্কিং ওয়েবসাইট যেগুলোকে বলা হয় এগুলোর তৎপরতা। ফেসবুকের সবচেয়ে বড় ক্ষতি হলো আসক্তি।
ধরেন আপনি ফেসবুকে অন্তর্ভুক্ত হলেন। আপনি কী করবেন? প্রতিদিন নিয়ম করে আপনার ফ্রেন্ডসদের আপডেটেড স্ট্যাটাস পড়তে শুরু করবেন। তারপর আপনি দেখবেন এখানে স্কুল কলেজের পুরনো বন্ধুদের বান্ধবীদের অনেককেই পেয়ে গেছেন। তাদের ছবি দেখছেন। আপনি তখন আপনার ছবিও দিতে চাইবেন- আপনার নিজের ছবি, বাড়ির ছবি, পোষা কুকুরের ছবি। সবকিছুই। এখানেই শেষ নয়। আপনি চাইবেন এ ছবিগুলোতে আপনার বন্ধুরা প্রতিদিন কমেন্ট পাঠাক। তাই আপনিও তাদের সবকিছুতে কমেন্ট পাঠাতে থাকবেন। আর ফেসবুকের সবচেয়ে আসক্তিকর দিকটি হলো এর গেমসগুলো। কাজ বাদ দিয়ে বা পরিবারের সাথে সময় না কাটিয়ে এসব গেমসে ঘণ্টার পর ঘণ্টা যেভাবে আমরা নষ্ট করি তাতে এটাকে আসক্তি বললেও কম বলা হয়।
আর ফেসবুকের আরেকটি ক্ষতিকর প্রবণতা হলো এখানে আপনার সবকিছুই উন্মুক্ত। একবার আপনি যখন ফেসবুকে সাইন আপ করছেন, আপনি এ পৃথিবীর কাছে নিজেকে পুরোপুরি মেলে ধরছেন। আপনার সম্পর্কে যে কেউ যে কোনো ধরনের তথ্য জানতে চাইলে সে তা পেয়ে যাবে ফেসবুকে। আর এটা ব্যবহার করে আপনাকে ভয় দেখানো থেকে শুরু করে আপনাকে যেকোনো স্বার্থের জন্যে ব্যবহার করা সবকিছুই সে করতে পারবে। ফেসবুকে ইউজাররা নিজেদের সম্পর্কে এত ব্যাপক তথ্যাদি দেন যে চাইলে যেকোনো ব্যক্তি এই তথ্যগুলোকে কাজে লাগিয়ে তাকে হেনস্থা করতে পারে। যেমন, আপনি হয়তো কোনো চাকরির জন্যে আবেদন করেছেন। নিয়োগকারী প্রতিষ্ঠান যদি চায় তাহলে আপনার এমন অনেক তথ্যও সে ফেসবুক থেকে নিতে পারে যা আপনি হয়তো তাদের জানাতে পছন্দ করতেন না বা জানানোটা আপনার ঐ প্রতিষ্ঠানে ঢোকার ক্ষেত্রে হবে প্রতিবন্ধক। সবচেয়ে দুঃখজনক হচ্ছে সাধারণ ইউজাররা কিন্তু নিজের অজান্তেই তুলে দিচ্ছেন নিজের সম্পর্কে এসব তথ্য যা ব্যবহৃত হচ্ছে তার নিজেরই বিরুদ্ধে। সুতরাং এ সকল বিষয়ে আমাদের এখনই সচেতন হওয়া প্রয়োজন।

8 Responses

  1. A Winnebago with a little car in tow.

    Like

  2. hi, just got a mac. . . . not used to it yet still used to the P.C lol

    Like

  3. Township Assembly Established For Monday, Irrespective of Street Excursion Decreased Pottsgrove commissioners canceled their previous community session on April 19. They don’t seem to be probably to miss two in a row, regardless of whether the board president is on an “international tour.”

    Like

  4. You can change your FB UserName once by clicking ACCOUNT >> ACCOUNT SETTINGS >> CHANGE USERNAME. If you’ve got changed it before, then this backlink will not be shown.

    Like

  5. Just wished to say aweseome theme and terrific publish.I like how you wright. You may very well be making some serious coin if you keep it up.

    Like

  6. many thanks, I believe your visitors could possibly want significantly more content articles similar to this carry on the fantastic get the job done.

    Like

  7. My programmer is trying to convince me to move to .net from PHP. I have always disliked the idea because of the expenses. But he’s tryiong none the less. I’ve been using WordPress on numerous websites for about a year and am worried about switching to another platform. I have heard excellent things about blogengine.net. Is there a way I can transfer all my wordpress posts into it? Any help would be really appreciated!

    Like

  8. I’m truly enjoying the design and layout of your site. It’s a very easy on the eyes which makes it much more pleasant for me to come here and visit more often. Did you hire out a developer to create your theme? Outstanding work!

    Like

Leave a comment

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s

%d bloggers like this: